Androcap কতদিন খাওয়া যায়? খাওয়ার নিয়ম ও অপকারিতা জানুন

আজকের এই আর্টিকালি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় নিয়ে কথা বলব সেটি হচ্ছে পুরুষদের পুরুষত্ব বাড়ানোর একটি ওষুধ তার নাম হচ্ছে এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল। অনেকে আছেন যারা এটি খাওয়ার কথা ভাবছেন তার আগে androcap কতদিন খাওয়া যায় এবং এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
শরীরে টেস্টোস্টেরন বাড়ানোর জন্য আমরা অনেক কিছুই করে থাকি অথচ টেস্টোস্টেরন বাড়ানোর জন্য এখন ক্যাপসুল আকারে পাওয়া যাচ্ছে তাই androcap 40 mg এর কাজ কি, কতদিন খাওয়া যায়, খাওয়ার নিয়ম সবকিছু এই আর্টিকালে তুলে ধরার চেষ্টা করব।

আজকের এই আর্টিকেলে এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব এর পাশাপাশি androcap কতদিন খাওয়া যায়, খাওয়ার নিয়ম এবং androcap 40 mg এর কাজ কি সকল বিষয়ে আপনাদের জানানোর চেষ্টা করব তাই এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল সম্পর্কে খুঁটিনাটি বিষয় জানতে হলে আজকের এই পোষ্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন কেননা যাদের টেস্টোস্টেরন হরমোনের মাত্রা কম তাদের জন্য এই আর্টিকেলটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। 

এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল কি কাজ করে

এন্ডোক্যাপ ক্যাপসুলের জেনারিক নাম হচ্ছে টেস্টোস্টেরন আনডেকানোয়েট। এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল পুরুষের পুরুষত্ব বাড়ানোর ওষুধ এটি পুরুষদের শরীরে টেস্টোস্টেরন হরমোনের মাত্রা বাড়ায় শুধু তাই নয় এর অনেক উপকারিতা রয়েছে যা বলে শেষ করা যাবেনা। টেস্টোস্টেরন হরমোন সম্পর্কে জানলে আপনার এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল কি কাজ করে তা জানা হয়ে যাবে। একজন পুরুষের পুরুষত্ব ধরে রাখাই হচ্ছে টেস্টোস্টেরন হরমোনের কাজ।

 
টেস্টোস্টেরন হরমোন যাতে শরীরে যত বেশি তাদের পুরুষত্ব ক্ষমতাও তত বেশি। সাধারণত পুরুষের অন্ডকোষ এই টেস্টোস্টেরন হরমোন তৈরি করে থাকে যখন অন্ডকোষ টেস্টোস্টেরন হরমোন তৈরি করতে বাধা প্রাপ্ত হয় তখন টেস্টোস্টেরন হরমোনের ঘাটতি দেখা দেয়। বয়স ৩০ বছর পর্যন্ত অন্ডকোষ স্বাভাবিকভাবে টেস্টোস্টেরন হরমোন তৈরি করে থাকে তারপর ধীরে ধীরে কমতে থাকে। এই টেস্টোস্টেরন হরমোন অভাবে একজন পুরুষের নানান সমস্যা দেখা দিতে শুরু করে যেমন
  • লিঙ্গের আঁকা ছোট হয়ে যাওয়া 
  • অল্প সময়ে বীর্যপাত হওয়া
  • শরীর দেখতে অনেক বয়স্ক লাগে
  • কোন কাজে মন বসতে চাই না
  • চুল পড়ে যাওয়া
  • পুরুষাঙ্গের চামড়া ঢিলে হয়ে যাওয়া
  • মানসিক অবসাদ হওয়া
  • কোন কিছু ভুলে যাওয়ার প্রবণতা অনেক বেশি দেখা যায়
উপরের উল্লেখিত লক্ষণগুলোই ছাড়াও আরো অনেক সমস্যা দেখা দেয় আপনার যদি এ সকল সমস্যা থেকে থাকে তাহলে টেস্টোস্টেরন হরমোন জাতীয় খাবারের পাশাপাশি এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খেতে পারেন একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে। আশা করি আপনারা এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল কি কাজ করে বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন।

androcap কতদিন খাওয়া যায়

অনেকে জানতে চেয়ে থাকেন androcap কতদিন খাওয়া যায়? যদি দ্রুত বীর্যপাত অথবা পুরুষাঙ্গ শক্ত না হলে অথবা পুরুষাঙ্গের চামড়া ঢিলা হলে বা লিঙ্গের আঁকা ছোট থাকলে এছাড়াও বীর্যের পরিমাণ কম থাকলে দিনে ৩ টি করে ক্যাপসুল প্রথম ৩ সপ্তাহ থেকে ৪ সপ্তাহ পর্যন্ত খাওয়া যায় ধীরে ধীরে অবস্থার উন্নতি হলে এর পরিমাণটা কমিয়ে আনা হয়। তবে এই ওষুধটি খাওয়ার আগে একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে খাবেন।

এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়ার নিয়ম

উপরের আলোচনায় androcap কতদিন খাওয়া যায় সেটা জানলাম এখন আমরা জানবো এন্ডোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে। প্রথম ৩ সপ্তাহ দিনে ৩টি করে ক্যাপসুল একজন ডাক্তার খাবার পরামর্শ দিয়ে থাকে ধীরে ধীরে অবস্থার উন্নতি হলে এর পরিমাণটাও কমিয়ে আনা হয় তখন দিনে একটি করে ক্যাপসুল পরের দিন থেকে চার সপ্তাহ খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকে। এই এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুলটি পানি দিয়ে গিলে খেতে হবে কখনোই চিবিয়ে খাওয়া যাবেনা এবং ভরা পেটে ওষুধটি খেতে হবে।

androcap 40 mg এর কাজ কি

androcap 40 mg ক্যাপসুল একটি হরমোনাল ঔষধ যা এড্রোজেন বিভাগের মধ্যে পড়ে। androcap 40 mg ক্যাপসুল শুধু পুরুষের টেস্টোস্টেরন হরমোনের বৃদ্ধি করে না বরং এর অনেক কার্যকারিতা রয়েছে যেমন হাড়ের ক্ষয় এবং পেশি বজায় রাখে, শরীরের ক্লান্তি দূর করা এছাড়াও স্বাস্থ্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। 

androcap এর অপকারিতা

আসুন এবার আমরা androcap এর অপকারিতা এবং পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জেনে নিই। যারা এন্টিবায়োটিকের সাথে এবং মিগি রোগে ভুগছে তাদের এই এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়া যাবেনা অতবে যাদের পোস্টেড এ টিউমার আছে বা বেস্ট স্টিমার আছে তাদের এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়া যাবেনা অথবা আপনি যদি টেস্টোস্টেরন ওপর হাইপারসেনসিভিটি থাকেন তাহলে এই ক্যাপসুলটি খাওয়া যাবে না। 


এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খেলে আপনার কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে আমরা জানি যে প্রায় সব ওষুধেরই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিন্তু সবার বেলায় পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ঘটবে এমনটা না চলুন তাহলে এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খেলে যেসব পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখাদিতে পারে যেমন
  • ডায়রিয়া
  • বমি বমি ভাব বা বমি হওয়া
  • মাথাব্যথা
  • প্রস্রাব করতে সমস্যা হওয়া
  • শরীরে ব্যথা হওয়া
  • ব্রণ
  • পেটে অস্থিতি ভাব
  • বদহজম
  • কন্ঠের পরিবর্তন
  • পুরুষের স্তন বৃদ্ধি
  • বীর্যপাত না হওয়া
উপরের এই উল্লেখিত পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া লক্ষণ গুলো যদি আপনার ভিতর দেখা দেয় তবে এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়া সীমিত করে একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিন এবং ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এই ক্যাপসুলটি সেবন করুন।

androcap এর দাম কত

এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল আপনি যেকোন ফার্মেসিতে পেয়ে যাবেন প্রতি পিচ ক্যাপসুলের মূল্য ২০ টাকা। একটি প্যাকেটে ৩০ টা ক্যাপসুল থাকে যার মূল্য ৬০০ টাকা কিনার আগে প্যাকেটটির উৎপাদন তারিখ এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ তারিখ দেখে নিবেন এবং সকলে ওষুধ শিশুদের নাগালের বাইরে রাখবেন।

উপসংহার

এই এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়ার আগে অবশ্যই একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে খাবেন এবং এই ক্যাপসুলটি মহিলাদের ব্যবহারের জন্য নয় এটি শুধুমাত্র পুরুষদের ক্ষেত্রে ব্যবহারযোগ্য। আপনার যদি কিডনি অথবা লিভার জনিত কোন সমস্যা থেকে থাকে তবে এই ওষুধটি খাওয়ার আগে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন এবং এই ওষুধটি শিশুদের নাগালের বাইরে রাখবেন।

আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের সাথে androcap কতদিন খাওয়া যায় এবং এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল খাওয়ার নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি আশা করি আপনি এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়েছেন এবং উপকৃত হয়েছেন। এই পোস্টটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে অন্যদের সাথে শেয়ার করবেন। বিভিন্ন ওষুধ সম্পর্কিত নানা তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটিতে প্রতিনিয়ত চোখ রাখতে পারেন। আপনার যদি আর এন্ড্রোক্যাপ ক্যাপসুল সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তবে নিচে কমেন্ট করতে পারেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
1 জন কমেন্ট করেছেন ইতোমধ্যে
  • নামহীন
    নামহীন ২০ এপ্রিল, ২০২৪ এ ৩:০৬ PM

    এই ওষুধ চলাকালীন যৌন রোগের অন্য কোন ওষুধ সেবন করা যাবে কি না

মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url