কোলাজেন ট্যাবলেট এর উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

কোলাজেন ট্যাবলেট টি মাছ থেকে তৈরি হয় এক কথায় বলতে গেলে মাছে যে সকল প্রোটিন থাকে ঠিক একই প্রোটিন কোলাজেন ট্যাবলেট এর মধ্যে রয়েছে যেটা আমাদের স্ক্রিনের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।প্রিয় পাঠক আজকের এই আর্টিকেলে কোলাজেন ট্যাবলেট এর উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।
কোলাজেন ট্যাবলেট এর উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া
আপনি যদি কোলাজেন ট্যাবলেট খাওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন অথবা আগে থেকে খাচ্ছেন কিন্তু কোলাজেন ট্যাবলেট কি এবং এর উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জেনে না থাকেন তাহলে আপনার জন্য জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়লে কোলাজেন ট্যাবলেট এর উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, খাওয়ার নিয়ম ইত্যাদি খুঁটিনাটি বিষয় জানতে পারবেন। 

কোলাজেন ট্যাবলেট এর উপকারিতা

কোলাজেন ফিস প্রোটিন ওষুধ যেটা আমাদের শরীরের ত্বকের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কোলাজেন আমাদের শরীরের চুল, নখ, হাড়, পেশি ও ত্বকের গঠনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। আমাদের বয়স বাড়ার সাথে সাথে ত্বকের উজ্জ্বলতা আস্তে আস্তে কমে যায় চামড়া ভাজ হয়ে যাই ফলে দেখতে বয়স্ক লাগে আর বয়স্ক ভাব দূর করে ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে কোলাজেন বিশেষ ভূমিকা পালন করে।


প্রতিটা মানুষের শরীরে ২৮ রকমের কোলাজেন থাকে আর এটি বয়স বাড়ার সাথে সাথে কোলাজেনের মাত্রা আস্তে আস্তে কমতে থাকে তাই আপনি যদি কোলাজেন ট্যাবলেটটি সেবন করেন তাহলে আপনার ত্বকের চামড়া আস্তে আস্তে টান টান হবে এবং উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে এছাড়া হাড়ের ঘনত্ব বজায় থাকবে এবং আপনার চুলের সৌন্দর্য আরো বৃদ্ধি পাবে ইত্যাদি। কোলাজেন ট্যাবলেট এর উপকারিতা গুলি নিচে উল্লেখ করা হলোঃ 
  • ত্বককে টানটান ও ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।
  • চুলে সৌন্দর্য বাড়ায়।
  • ফুসফুসের সংক্রমণ প্রতিরোধ করে।
  • দাঁত ও মাড়ির ভালো রাখে।
  • হাড়ের ঘনত্ব ঠিক রাখে।
  • কিডনি ভালো রাখে।
  • হৃদযন্ত্রের প্রক্রিয়া স্বাভাবিক রাখে।
  • চোখের নিচে কালো দাগ দূর করে।
  • শরীরে বয়স্কের ছাপ দূর করে।
  • এবং শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ভালো রাখে।

কোলাজেন ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

অনেকেই জানতে চেয়ে থাকেন কোলাজেন ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে। শুধু কোলাজেন ট্যাবলেট নয় বরং যে কোনো ওষুধ খাওয়ার আগে একজন ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী খাওয়া উচিত কারণ প্রতিটি মানুষের শরীরের কন্ডিশন এবং বয়স ভিন্ন থাকে তাই ডাক্তারের পরামর্শে সেবন করা উচিত।

সপ্তাহে বা দিনে কতবার কতটুকু পরিমাণে কোলাজেন ট্যাবলেট সেবন করতে হবে তা সাধারণত কোলাজেন সাপ্লিমেন্ট বোতলের গায়ে উল্লেখ করা থাকে সেই অনুযায়ী আপনি খেতে পারেন। তবুও আপনাদের সুবিধার্থে খাওয়ার নিয়ম বলছি, প্রতিদিন সকাল এবং রাতে খাওয়ার ৩০ মিনিট আগে ১টি ট্যাবলেট করে সেবন করতে পারেন তবে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করা উচিত।

ফ্রোজেন কোলাজেন এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

ফ্রোজেন কোলাজেন হলো এক ধরনের হারবাল ট্যাবলেট যা আমাদের ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে এই ট্যাবলেট এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি, অ্যালোভেরা এবং অন্যান্য প্রাকৃতিক উপাদান। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে, চোখের নিচের কালো দাগ ও বলিরেখা দূর করতে এটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। অন্যান্য ওষুধের মতোই ফ্রোজেন কোলাজেন ট্যাবলেট সেবন করলে কারো কারো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে সেগুলো হলঃ-
  • বমি বমি ভাব বা বমি হওয়া।
  • মাথা ব্যথা করা।
  • ত্বকে লাল লাল ভাব অথবা চুলকানো।
  • বুক জ্বালাপোড়া করা।
  • পেট ব্যথা করা।
  • চুল পড়া শুরু হতে পারে।
  • ঠিক মতো ঘুম নাও হতে পারে।
  • ত্বকে বিভিন্ন ক্ষত সৃষ্টি হতে পারে।
ফ্রোজেন কোলাজেন ট্যাবলেট খাওয়ার পর উপরের উল্লেখিত পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলি যদি আপনার মধ্যে দেখা যায় তাহলে ফ্রোজেন কোলাজেন ট্যাবলেট খাওয়া বন্ধ করে একজন ডাক্তারকে জানানো উচিত। আর কখনোই অতিরিক্ত মাত্রায় ফ্রোজেন কোলাজেন ট্যাবলেট খাবেন না।

ফ্রোজেন কোলাজেন লোশন ব্যবহারের নিয়ম

অনেকেই ফ্রোজেন কোলাজেন লোশন ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে জানতে চেয়ে থাকেন। ফ্রোজেন কোলাজেন লোশন প্রাকৃতিকভাবে ত্বককে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে এবং ত্বকের বলিরেখা দূর করে এছাড়া ত্বককে নরম করে এবং ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করে ইত্যাদি। ফ্রোজেন কোলাজেন লোশন ব্যবহারের নিয়ম হচ্ছে প্রথমেই হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে ভালোভাবে মুখ ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন।

তারপর পুরো মুখে সমানভাবে ফ্রোজেন কোলাজেন লোশন লাগিয়ে দিন তারপর ৩০ থেকে ৬০ মিনিট অপেক্ষা করুন তারপর ক্রিমটি শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন এইভাবে সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ বার ব্যবহার করতে পারেন।

কোলাজেন ট্যাবলেট এর নাম

বর্তমানে বাজারে বিভিন্ন রকম কোম্পানি বিভিন্নভাবে কোলাজেন ট্যাবলেট তৈরি করছে তবে আপনি মৌখিকভাবে ক্লোজেন ১০ এম জি এই ট্যাবলেটটি ব্যবহার করতে পারেন। Clogen 10 mg Tablet
এস্টোস্টেরল তৈরির জন্য ছত্রাক প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে এবং এটি কোষে বিকাশ ঘটায়। আপনাদের সুবিধার্থে নিচে বেশ কয়েকটি কোলাজেন ট্যাবলেট এর নাম উল্লেখ করা হলোঃ-
  • Clogen 10 mg Tablet 
  • Glutathione 250 mg
  • Vistra Gluta Complex 800mg
  • Neocell, Super Collagen + Vitamin C
  • Frozen Collagen (2 in 1)
  • Youtheory Collagen + Biotin
  • ভিটামিন ই ক্যাপসুল
  • সাফি ক্যাপসুল

কোলাজেন ট্যাবলেট কোথায় পাওয়া যায়

অনেকেই জানতে চেয়ে থাকেন কোলাজেন ট্যাবলেট কোথায় পাওয়া যায়। এই কোলাজেন ট্যাবলেটটি আপনারা যেকোনো ফার্মেসি অথবা দোকানে পেয়ে যাবেন এছাড়া আপনারা এটি দারাজ এ পেতে পারেন। এটি বিভিন্ন কোম্পানির হয়ে থাকে তাই কেনার আগে অবশ্যই ভালো কোম্পানি দেখে কিনবেন এবং ভালোভাবে মেয়াদ দেখে নিবেন।

কোলাজেন ট্যাবলেট এর দাম বাংলাদেশে

অনেকে আছেন যারা কোলাজিন ট্যাবলেট এর দাম সম্পর্কে জানেন না কিন্তু প্রতিটি জিনিস কেনার আগে দাম সম্পর্কে জানা উচিত। বাজারে অনেক ধরনের কোলাজেন ট্যাবলেট পাওয়া যায় তার মধ্যে Frozen Collagen (2 in 1) ৬০টি ট্যাবলেট এই প্যাকেটের দাম হচ্ছে ১২০০ টাকা এবং Neocell সুপার কোলাজেন টাইপ ভিটামিন C-360 ট্যাবলেট এর দাম হচ্ছে ৪৫০০ টাকা।

উপসংহার

প্রিয় বন্ধুগণ আজকের এই আর্টিকেলে কোলাজেন ট্যাবলেট এর উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আপনি যদি কোলাজেন ট্যাবলেট খাওয়ার কথা ভাবছেন তাহলে অবশ্যই একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে খাবেন কারণ কিছু কিছু জিনিসের যেমন উপকারিতা রয়েছে তেমনি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে।

আশা করি আপনি এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়েছেন। আপনার যদি এই আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অন্যদের সাথে শেয়ার করে দিবেন এবং আপনার যদি কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে নিচে কমেন্ট করে আমাদেরকে জানাতে পারেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url