মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে - মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা

অনেকে আছেন যারা কিনা মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে তা নিয়ে কনফিউজ এছাড়াও অনেকেই মিল্ক শেক খেয়ে থাকে কিন্তু মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা জানা নেই সেই জন্য আজকের এ আর্টিকেল পোস্টে মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে এবং মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা এছাড়াও মিল্ক শেক এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা সকল খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।

মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে - মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতামিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে এই কথাটা অনেকেরই মনে প্রশ্ন জাগে আর আপনি কি চিকন শরীর নিয়ে চিন্তিত তাহলে আজকের এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন কেননা মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা এবং মিল্ক শেক এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা সবকিছুই আর্টিকেলে তুলে ধরার চেষ্টা করব। জানতে হলে আমাদের সাথেই থাকুন। 

মিল্ক শেক খেলে কি হয়

মিল্ক শেক খেলে দেহের বিভিন্ন রকম উপকার পাওয়া যায়। মিল্ক শেক খেলে কোন ক্ষতি হওয়ার চান্স নেই। এটাতে ৫৯ টি উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে যেমন খেজুর, কিসমিস, মিষ্টি কুমড়া, গাজর ইত্যাদি যেসব প্রাকৃতিক উপাদান রয়েছে। যার ফলে আমাদের শরীরে ভিটামিন, মিনারেল এবং ক্যালসিয়াম
ঘাটতি পূরণ করে। 


এবং ওজন বাড়াতে বেশ কার্যকারী ভূমিকা পালন করে। আপনি যদি চিকন শরীর নিয়ে বেচ চিনতে হয়ে থাকেন তাহলে আপনাকে বলব মিল্ক শেক খাওয়া উচিত তবে মিল্ক শেক কেনার আগে ভালোভাবেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যেখান থেকে কিনবেন হোক সেটা ফেসবুক পেজ অথবা বিভিন্ন বাজার থেকে অরজিনাল নাকি ডুপ্লিকেট সেটা যাচাই করে নিবেন না তো কোন উপকার পাবেন না।

মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে

যারা চিকন শরীর নিয়ে বেশি চিন্তিত কোনভাবেই নিজের শরীরের ওজন বাড়াতে পারছেন না তাদের জন্য মিল্ক শেক খুবই উপকারী। অনেকেরই মনে প্রশ্ন জাগে মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে কথাটা কি সত্য আসেন তাহলে জেনে নেওয়া যাক মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে। 

কলার মিল্ক শেক এ রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি৬, ভিটামিন সি এছাড়াও ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস এবং অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টস। বাদাম মিল্ক শেক আপনার ওজন বাড়াবে তা নির্ভর করে আপনার খাদ্য তালিকার ওপর আপনি কতটুকু ক্যালরি গ্রহণ করছেন এবং শারীরিক কার্যকলাপের মাত্রা ও বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রিক ওপরে।

আপনি যদি মিল্ক শেক গ্রহণ করেন তবে এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে চিনি এবং ক্যালোরি যা আপনার ওজন বাড়াতে সাহায্য করবে। আরেকটা কথা মনে রাখবেন প্রয়োজন বারা বা কমা এটি সম্পূর্ণ ক্যালোরি ওপর নির্ভর করে। তবে এক কথায় বলতে গেলে বাদাম মিল্ক শেক লেবার দিয়ে আপনি খেতে পারেন ওজন বাড়ার ক্ষেত্রে।

মিল্ক শেক খাওয়ার নিয়ম

অনেকেই আমরা ওজন বাড়ানো বা স্বাস্থ্যের উপকারের জন্য মিল্ক শেক খেয়ে থাকি কিন্তু অনেকেই আছে যারা সঠিক নিয়মে মিল্ক শেক খাওয়ার নিয়ম জানিনা তাই আর্টিক্যাল এর এ অংশে মিল্ক শেক খাওয়ার নিয়ম আপনাদের জানবো। 


এই মিল্ক শেকটি এক গ্লাস হালকা গরম কুসুম দুধের সাথে ১-২ চামচ মিস করে খেতে হবে। প্রতিদিন রাতের খাবারের ৩০ মিনিট আগে খেতে হবে ফলে দ্রুত ফলাফল পাবেন আশা করি মিল্ক শেক খাওয়ার নিয়ম কিভাবে খেতে হবে বুঝতে পেরেছেন।

মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা

মিল্ক শেক আমরা অনেকেই খেয়ে থাকি কিন্তু মিল্ক শেক এর উপকারিতা এবং মিল্ক শেক এর অপকারিতা সম্পর্কে তেমন একটা জানেনা তাই যারা মিল্ক শেক উপকারিতা সম্পর্কে জানেন না তাদের জন্য এই অংশটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ কারণ আর্টিকেলের এই অংশে আমরা মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করব চলুন তাহলে মিল্ক শেক এর উপকারিতা জেনে নেওয়া যাক।
  • ক্যালসিয়াম যা হার্ট এবং দাঁত মজবুত করে।
  • ভিটামিন ডি রয়েছে। 
  • শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।
  • প্রোটিন আমাদের শরীরকে স্বাস্থ্যবান এবং পেশী গঠনে সহায়তা করে।
  • মস্তিষ্ক ঠিকমতো বজায় রাখতে সহায়তা করে।
  • হার্ট সুস্থ রাখে।
  • ওজন বাড়াতে সাহায্য করে।
  • কার্বোহাইডেট এর ঘাটতি দূর করে।
  • অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট 
  • পুষ্টি উপাদানের ভরপুর
উপরের উল্লেখিত উপকারীগুলো ছাড়াও মিল্ক শেক এর আরো অনেক গুণ রয়েছে। তাই আপনি যদি খুবই দুর্বল শরীর হয়ে থাকেন তাহলে মিল্ক শেক গ্রহণ করতে পারেন নিশ্চিন্তে তবে দোকান থেকে কেনার সময় অরজিনালটা বাছাই করে নিবেন।

মিল্ক শেক এর অপকারিতা

মিল্ক শেক খাবার যেমন অনেক গুণ রয়েছে তেমনি কিছু অপকারিতা রয়েছে তা অনেকেই জানেনা তাই আপনাদের সাথে এই অংশে মিল্ক শেক এর অপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করব। চলুন তাহলে মিল্ক শেক ক্ষতিকর দিকগুলো সম্পর্কে অর্থাৎ মিল্ক শেক বেশি খেলে কি কি সমস্যা দেখা দিতে পারে আমাদের শরীরে তা জেনে নেওয়া যাক। 

আপনি যদি ব্যানানা মিল্ক শেক ফ্লেভারটি বেশি খেয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে পেটে গ্যাস বা বদহজমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এছাড়াও কোষ্ঠকাঠিন্য হতে পারে আপনি যদি ব্যানানা মিল্ক শেক দৈনিক খান তাহলে কোলেস্টেরল এবং ট্রাই গ্লিসারাইড মাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে এবং সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাছাড়া তেমন একটা মিল্ক শেক এর অপকারিতা পাওয়া যায়নি। 

এক কথায় বলতে গেলে মিল্ক শেক প্রতিদিন ১ থেকে ২ চামচ খেতে পারেন তার বেশি খাওয়া উচিত নয় না তো বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে আশা করি মিল্ক শেক এর অপকারিতা সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

মিল্ক শেক প্রাইস কত?

বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ মানুষ মিল্ক শেক খেলে ওজন বাড়াতে খেয়ে থাকি। আর বর্তমানে মিল্ক শেক বিভিন্ন রকম ফ্লেভারে রয়েছে যেমন ব্যানানা মিল্ক শেক, চকলেট মিল্ক শেক, পিনাট মিল্ক শেক,  ভ্যানিলা মিল্ক শেক , স্ট্রবেরি মিল্ক শেক আরো অনেক রকমের ফ্লেভার থাকতে পারে। 

এটি সাধারণত অনেক কোম্পানি তৈরি করে থাকে তাই একেক কোম্পানির দাম একেক রকম। আপনাদের বোঝানোর সুবিধার ক্ষেত্রে নিচে কয়েকটি ফ্লেভারের দাম উল্লেখ করা হলো।
  • মিল্ক শেক ভ্যানিলা ১০০ গ্রাম = ১৮০ টাকা। 
  • চকোলেট মিল্ক শেক ৩৫০ মিলি = ৭০০ টাকা 
  • চকলেট মিল্ক শেক ৩৫০ মিলি = ৮০০ টাকা

মিল্ক শেক এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

উক্ত আলোচনায় আমরা আপনাদের জানিয়েছি মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা এবং মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে সে সম্পর্কে। এখন আমরা আপনাদের সাথে মিল্ক শেক এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া
নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব কারণ প্রতিটি জিনিসেরই যেমন ভাল দিক রয়েছে তেমনি খারাপ দিক রয়েছে তাই মিল্ক শেক খাওয়ার আগে তার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 


বিশেষ করে ব্যানানা ফ্লেভার মিল্ক শেক মস্তিষ্কে খারাপ প্রভাব ফেলে। দুধ এবং কলা একসঙ্গে খাওয়ার উপকারিতা রয়েছে আপনারা অনেকেই শুনেছেন কিন্তু আসলেই কি উপকার পাওয়া যায় না যেমনটা আপনার ভাবেন তেমনটা না। 

আয়ুর্বেদের মতে দুধে ক্যালসিয়াম এবং কলাতে ফাইবার রয়েছে যার কারণে আপনি দুধ এবং কলা একসাথে খাওয়া উচিত নয় কারণ এই ভাবে খেলে আপনার হরমোন এবং মস্তিষ্কে বিভিন্নভাবে প্রভাব ফেলতে পারে। আশা করি মিল্ক শেক এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

ওয়েট গেইন মিল্ক শেক এর দাম কত

ওয়েট গেইন মিল্ক শেক এর দাম কত অনেকেই জানতে চাই। বাজার অনুযায়ী এর দাম ওঠানামা করে তবে বর্তমান  ওয়েট গেইন মিল্ক শেক এর দাম ১০০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকা মধ্যেই পেয়ে যাবেন আশা করি।

শেষ কথা

এই আর্টিকেলে আপনাদেরকে মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে এবং মিল্ক শেক এর উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়েছি এছাড়াও আপনাদের মিল্ক শেক প্রাইস কত, মিল্ক শেক খেলে কি ওজন বাড়ে এই সকল খুঁটিনাটি বিষয় জানিয়েছি। 

তবে আরেকটি কথা বেনানা ফ্লেভার মিল্ক শেক না খাওয়াই উচিত খেলে কি হয় আপনাদেরকে উপরের উক্ত আলোচনায় মিল্ক শেক এর অপকারিতা জানিয়ে দিয়েছি। এবং আপনি যদি দুর্বল শরীর থেকে সফল হতে চান এবং মোটা হতে চান অর্থাৎ শরীরের ওজন বাড়াতে চান সেক্ষেত্রে আমি বলব মিল্ক শেক খেতে পারেন।

এবং মিল্ক শেক আপনার আশেপাশের দোকানে পেয়ে যাবেন এবং কেনার আগে অবশ্যই সেটি অরজিনাল কিনা ভেরিফাই করে নিবেন ডুবলিকেট যদি হয় তাহলে কোন উপকার পাবেন না। এই আর্টিকেলটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে অন্যদের সাথে শেয়ার করে দিবেন। 

এবং আরো নতুন তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইটে প্রতিদিন চোখ রাখতে পারেন। আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আর আপনার যদি কোন প্রশ্ন থেকে থাকে আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url