বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় ও কৃষি ভিসা সম্পর্কে

আজকের এই আর্টিকেলে বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় এবং অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে চান কিন্তু কোন উপায় খুঁজে পাচ্ছেন না তাহলে আজকের এই আর্টিকেল পোস্টটি আপনার জন্য কেননা এই আর্টিকেলে বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় তুলে ধরার চেষ্টা করব তাই জানতে হলে আমাদের সাথেই থাকুন।
বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় ও কৃষি ভিসা সম্পর্কে
বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগ্রহে অনেকেই। কিন্তু বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় এবং অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা সম্পর্কে অনেকেই সঠিক তথ্য জানে না। তাই এই
পোষ্টটি পড়লে আপনি অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায়, ভিসা এবং বেতন সকল বিষয় বিস্তারিত জানতে পারবেন।
পোস্ট সূচীপত্রঃ 

অস্ট্রেলিয়ার মুদ্রার নাম 

অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় সম্পর্কে জানার আগে প্রথমে আপনাকে অস্ট্রেলিয়া দেশ সম্পর্কে জানা দরকার। অস্ট্রেলিয়ার মুদ্রার নাম হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ান ডলার। অস্ট্রেলিয়া বিশ্বের ষষ্ঠ বৃহত্তম দেশ এটি ওশেনিয়া মহাদেশে অবস্থিত এবং অস্ট্রেলিয়ার রাজধানীর নাম হচ্ছে ক্যানবেরা। ছোট ছোট ক্ষুদ্র দ্বীপ নিয়ে অস্ট্রেলিয়া গঠিত এ দেশটির মোট আয়তন হচ্ছে ৭৬,১্‌৯৩০ বর্গ কিলোমিটার।

অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন

প্রথমে আপনাদেরকে জানাই অস্ট্রেলিয়া ভিসা কোন দালাল অথবা এজেন্টের মাধ্যমে পাওয়া যায় না।তাহলে কিভাবে ভিসা পাওয়া যায় আপনাকে অস্ট্রেলিয়ার ভিসা পেতে হলে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। অস্ট্রেলিয়ান ইমিগ্রেশনের জন্য অফিসিয়াল ওয়েবসাইট রয়েছে https://immi.homeaffairs.gov.au/সেখানে গিয়ে আপনাকে আবেদন করতে হবে। 


আবেদন করার আগে বেশ কিছু জিনিস আপনাকে জানতে হবে তাহলে আপনি নিজে নিজেই ভিসার আবেদন করতে পারবেন এবং ঘরে বসেই আপনাদের ভিসাটা পেতে পারেন এটার জন্য আপনাকে এম্বাসিতে যেতে হবে আপনাদের বায়োমেটিক টা দেওয়ার জন্য আর সব কাজ আপনি ঘরে বসেই করতে পারেন। 

অস্ট্রেলিয়ার ভিজিট ভিসা টোটালি ইলেকট্রনিক একটা ভিসা বা পেপার ভিসা যেটা ইমেল মাধ্যমে আপনার কাছে পাঠিয়ে দিবে এটার জন্য আপনাকে কোন এম্বাসিতে যেতে হবে না তাই আপনি যদি ঘরে বসেই সঠিকভাবে অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন করতে পারেন তাহলে ঘরে বসে আপনি আপনার ভিসা পেতে পারেন।

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায়

আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে আপনাকে চারটি ভিসার মাধ্যমে যেতে হবে সেগুলো হলোঃ
  1. অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসা
  2. অস্ট্রেলিয়া টুরিস্ট বা বিজনেস ভিসা
  3. অস্ট্রেলিয়া মেডিকেল ভিসা
  4. অস্ট্রেলিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা
উপরের উল্লেখিত এই ভিসা গুলির মাধ্যমে আপনি বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে পারবেন এবং ভিসা সহ আপনার একটি বৈধ পাসপোর্ট এবং এয়ার টিকিট থাকা লাগবে। অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার সব থেকে সহজ উপায় হচ্ছে টুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে যাওয়া করোনা পরবর্তীতে অস্ট্রেলিয়ার অর্থনীতি চাঙ্গা করার জন্য প্রচুর পরিমাণে টুরিস্ট ভিসা দিচ্ছে। 

এবং আপনি যদি স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন তাহলে IELTS পরীক্ষা দিয়ে অস্ট্রেলিয়া যেতে পারবেন এবং আপনি যদি কর্মী হিসেবে অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে বোয়েসেল এজেন্সির মাধ্যমে যেতে হবে এই হল বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায়.

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে

অনেকেই জানতে চেয়ে থাকেন বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে এবং কত টাকা ব্যাংক একাউন্টে দেখাতে হয়। বাংলাদেশ থেকে সরাসরি অস্ট্রেলিয়া যাওয়া যায় না ইন্ডিয়া হয়ে অস্ট্রেলিয়া যেতে হয়। সাধারণত অস্ট্রেলিয়া যেতে ১০ থেকে ১২ লক্ষ টাকা লাগে তবে খরচের পরিমাণ নির্ভর করে আপনার ভিসার ধরনের ওপর আপনি কোন বিষয় অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন। 

আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় যান তাহলে আপনার খরচ পড়বে ৩ থেকে ৪ লক্ষ টাকা। আর আপনি যদি ভ্রমণের উদ্দেশ্যে অর্থাৎ টুরিস্ট ভিসায় যেতে চান ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আশা করি আপনি বুঝতে পেরেছেন যে বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে।

অস্ট্রেলিয়া কাজের বেতন কত

বাংলাদেশ থেকে যারা অস্ট্রেলিয়া কাজের জন্য যেতে আগ্রহী প্রকাশ করে তারা অনেকে জানতে চেয়ে থাকেন অস্ট্রেলিয়া বেতন কত। আপনি যদি অস্ট্রেলিয়ায় কাজের জন্য যান তাহলে আপনি প্রতি ঘন্টায় ২০ ডলার করে করে আয় করতে পারবেন এবং অস্ট্রেলিয়ার সর্বনিম্ন বেতন হচ্ছে ৬৫ হাজার টাকা।বেতন মূলত আপনার কাজের দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতার ওপর নির্ভর করে আপনার যদি কাজের উপর ভালো দক্ষ থেকে থাকে তাহলে আপনি বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা ২০২৩

যারা কৃষি কাজে ভাল দক্ষ এবং কৃষি কাজ করার জন্য অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসায় যেতে চান তারা অনেকে জানতে চেয়ে থাকেন অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা সম্পর্কে। অস্ট্রেলিয়ায় কৃষি ভিসায় যাওয়ার জন্য আপনার কিছু যোগ্যতার প্রয়োজন হবে যেমন শিক্ষাগত যোগ্যতা, কৃষি কাজের অভিজ্ঞতা প্রমাণস্বরূপ, ভাষা গত যোগ্যতা। 

অস্ট্রেলিয়ায় কৃষি ভিসায় বিভিন্ন ধরনের কাজে রয়েছে যেমন কমলা বাগানের কাজ, গবাদি পশু পালন, ক্লিনার, আঙ্গুর বাগানের কাজ ইত্যাদি আরো অনেক রকম কৃষিকাজ করে রয়েছে যেগুলো আপনারা অস্ট্রেলিয়া গিয়ে করতে পারবেন।

অস্ট্রেলিয়া কৃষি কাজের বেতন কত

অস্ট্রেলিয়ায় যারা কৃষি কাজে যেতে চান তারা অনেকেই জানতে চেয়ে থাকেন অস্ট্রেলিয়া কৃষি কাজের বেতন কত। অস্ট্রেলিয়াতে গিয়ে অনেকেই স্বাবলম্বী হয়েছে ভালো টাকা ইনকাম করেছে। অস্ট্রেলিয়াতে আপনি যেই কোন কাজের জন্য যান না কেন আপনি অস্ট্রেলিয়া তে প্রতি মাসে ভালো একটি বেতন আয় করতে পারবেন। 

অস্ট্রেলিয়াতে কৃষি কাজের বেতন ৪০ থেকে ৬০ হাজার টাকা হলেও অনেক সোর্সের মাধ্যমে বেতন আরো বেশি হয়ে থাকে যেমন আপনার এক লক্ষ থেকে দেড় লক্ষ টাকাও হয়ে থাকে। অস্ট্রেলিয়াতে কৃষি কাজের জন্য নানা রকমের সুযোগ রয়েছে। অস্ট্রেলিয়াতে মূলত ৩০ ঘন্টা কাজ করতে হয় তাও এটা সর্বোচ্চ অর্থাৎ সপ্তাহে ৩০ ঘণ্টার বেশি কাজ করানো হয় না। 

করার পরেও যদি আপনি ওভারটাইম করেন তাহলে আপনি মাসিক ইনকাম কৃষি কাজের মাধ্যমে আপনি অস্ট্রেলিয়াতে ৪০ থেকে ৬০ হাজার যে মূল বেতন তার পাশাপাশি কভারটাইম করে আপনি এক লক্ষ বা তার চেয়ে বেশি ইনকাম করতে পারবেন।


তাছাড়া আরেকটি সুযোগ রয়েছে আপনি যদি কৃষিকাজ করতে করতে মালিকের বিশ্বস্ততা অর্জন করতে পারেন এবং কাজের উপর দক্ষ হয়ে উঠতে পারেন তাহলে সেই দক্ষ এবং বিশ্বস্ততার জন্য বেতন আরো বাড়িয়ে দিবে।

অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসার দাম কত

আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসায় যেতে চান তাহলে আপনার অনেক টাকায় লেগে যাবে। অনেক বাংলাদেশী ভাইয়েরা আছেন যারা অস্ট্রেলিয়ায় কৃষি ভিসায় যেতে আগ্রহী প্রকাশ করেন এবং জানতে চেয়ে থাকেন কৃষি ভিসার দাম কত এই অংশে তা আপনি জানতে পেরে যাবেন। অস্ট্রেলিয়ায় কৃষি ভিসার খরচ সব মিলিয়ে প্রায় ৭ থেকে ৮ লক্ষ টাকা লাগবে। আর যদি বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে যেতে চান তাহলে ১০ থেকে ১২ লক্ষ টাকা খরচ হয়ে যাবে।

অস্ট্রেলিয়া যেতে কত বছর বয়স লাগে

আপনি যদি অস্ট্রেলিয়ায় যেতে চান তাহলে আপনার সর্বনিম্ন ১৮ বছর বয়স হওয়া লাগবে আর যদি আপনি সেখানে বিভিন্ন কাজ করেন তাহলে ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সের মধ্যে হতে হবে। আর যদি আপনার বয়স ১৮ বছরের নিচে হয়ে থাকে তাহলেও আপনি অস্ট্রেলিয়া যেতে পারবেন তবে আপনার অভিভাবকের পারমিশন নিতে হবে।

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়ার দূরত্ব

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া দূরত্ব প্রায় ৭১৭১ কিলোমিটার। আপনি যদি অস্ট্রেলিয়ায় দ্রুত যেতে চান তাহলে মেলবোর্ন ফ্লাইটে যেতে হবে। বাংলাদেশ থেকে মেলবোর্ন ফ্লাইটে যেতে সময় লাগে ১৯ ঘন্টা ৪৫ মিনিট মতো।

শেষ কথা

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় এবং অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা সম্পর্কে আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করলাম এর পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়ার দূরত্ব এবং অস্ট্রেলিয়া কৃষি কাজের বেতন কত আরো অনেক বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরার চেষ্টা করেছি আশা করি আপনি সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েছেন। 

আপনার যদি এই আর্টিকেল পোস্টটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অন্যদের সাথে শেয়ার করে দিবেন। আর যদি আপনার অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় এবং কৃষি ভিসা সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তবে নিজে কমেন্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url