জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয় ও করণীয় কি

প্রায় মানুষেরই দেখা যায় জিহ্বার গোড়ায় গোটা গোটা হয় যার ফলে চিন্তিত হয়ে পড়ে আবার অনেকেই মনে করেন এটি ক্যান্সার তাই আজকের এই আর্টিকেলে জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয় ও করণীয় কি এবং জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি কেন হয় এই সকল বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। আশা করি এই আর্টিকেলটি পড়লে জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয় এই সকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন।
জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয় - জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি
এই জিহ্বার গোড়ায় গোটা বেশিরভাগ শিশুদের ক্ষেত্রে দেখা যায় আবার বড়দের হয়ে থাকে অনেকে আছেন যারা জিহ্বার গোড়ায় গোটা বা লাল গোটা দেখা দিলে সেটাকে অবহেলা করেন এটা কখনোই করা উচিত নয়।

তাই আপনাদের আজকের এই আর্টিকেলে জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয় ও করণীয় কি এর পাশাপাশি জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি কেন হয় এই সকল খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব তাই এই সকল বিষয়ে জানতে হলে পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। 

ভূমিকা

জিহ্বার আমাদের শরীরে একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যার দ্বারা আমরা প্রতিটা খাবারের স্বাদ গ্রহণ করে থাকি। জিহ্বার গোড়ায় গোটা বলতে জিহ্বার পিছনের দিকে ব্যথা অনুভব হয় সেটাকেই জিহ্বার গোড়ায় গোটা বলা হয়ে থাকে। এই জিহ্বার গোড়ায় গোটা বেশি বড় হয় না ছোট ছোট লাল বর্ণের হয়ে থাকে ফলে কোন খাবার খাওয়ার সাথে প্রচন্ড জ্বালাপোড়া করে এবং ব্যথা হয়। 


অনেকে আছেন যারা এই জিহ্বার গোড়ায় গোটা লালচে ভাব এগুলি অবহেলা করে থাকেন ফলে এটি দীর্ঘস্থায়ী হয়ে যায় ভালো হতে চাই না আর এই অবহেলার ফলেও হতে পারে আপনার ক্যান্সার। তাই আমাদের সকলের উচিত কোন রোগেই ছোট আকারে না দেখা। 

চিন্তার কোন কারণ নেই আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে জিহ্বার গোড়ায় গোটা হওয়ার কিছু কারণ তুলে ধরার চেষ্টা করব যে গুলির মাধ্যমে আপনারা বুঝতে পারবেন জিহ্বার গোড়ায় লাল গোটা কেন হয়েছে তাই জানতে হলে এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন।

জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয়

অনেকে জানতে চেয়ে থাকেন জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয়? জিহ্বার গোড়ায় গোটা হওয়ার পিছনে এর বিভিন্ন কারণ রয়েছে যেমন ভিটামিনের অভাবে, কম পানি পান করা, জিহ্বার আঘাত, ধূমপান, তামাক চিবাণু এবং প্রতিদিন জিহ্বা পরিষ্কার না করা ইত্যাদি কারণে জিহ্বার গোড়ায় গোটা হয় তবে আরো অনেক কারণ রয়েছে যেগুলি নিচে উল্লেখ করা হলোঃ
  • জিহ্বা আঘাত 
  • ওয়াল হারপিস
  • এলার্জি
  • ভিটামিনের অভাব
  • সংক্রমণ
  • ক্যান্সার
  • সিফিলিস
  • যক্ষা
  • ধূমপান ও অ্যালকোহল
  • প্রচন্ড গরমে কফি খাওয়া
  • ইনফেকশন

জিহ্বায় গোটা হলে করণীয় কি

যাদের জিহ্বার গোড়ায় গোটা গোটা এবং লালচে রঙের গোটা, ফুসকুড়ি ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিলে তারা চিন্তিত হয়ে পড়েন চিন্তার কোন কারণ নেই এই অংশে আপনাদের জিহ্বার গোড়ায় গোটা হলে করণীয় এবং জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি কিছু ঘরোয়া প্রতিকার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। যার মাধ্যমে আপনারা খুব সহজে ভালো করতে পারেন এই জিহ্বার গোড়ায় গোটা এবং ফুসকুড়ি।

  • প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে।
  • জিহ্বা সব সময় পরিষ্কার রাখুন।
  • টক জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন।
  • এলোভেরার রস গোটা জায়গাতে লাগান ফলে তাড়াতাড়ি সেরে উঠবে।
  • দুই চামচ হলুদের গুড়া গরম পানিতে মিশিয়ে কুলি-কুচি করুন ফলে মুখের ব্যাকটেরিয়া দূর হবে।
  • ধূমপান ও অ্যালকোহল এড়িয়ে চলুন।
  • অতিরিক্ত জিহ্বা ব্রাশ করা যাবে না।
  • বেশি বেশি সবুজ শাক-সবজি খাওয়া এবং ভাজাপোড়া খাওয়া এড়িয়ে চলা।
  • খাওয়ার পরে চা পান করতে পারেন ফলে জিহ্বা অনেকটা আরাম পাবেন।
  • তামাক চিবানু থেকে এড়িয়ে চলুন।
  • যেকোনো স্বাস্থ্য সমস্যা থাকলে চিকিৎসা করুন যেমন ডায়াবেটিস।
  • ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ভিটামিন গ্রহণ করুন।
  • বছরে দুই থেকে তিনবার ডেন্টিস্ট দেখান। 
এই হল জিহ্বায় গোটা হলে করণীয় আশা করি আপনি সবকিছু বুঝতে পেরেছেন আর যদি আপনার এগুলো অনুসরণ করেও কোনো উপকার বা জিহ্বার গোড়ায় গোটা ভাল না হয় সে ক্ষেত্রে একজন ডাক্তারের শরণাপন্ন হন।

জিহ্বার গোড়ায় লাল গোটা কেন হয়

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যাদের জিহ্বার গোড়ায় লাল গোটা রঙের দেখা যায় এই লাল রঙের গোটার মূল কারণ হচ্ছে ভিটামিনের অভাব। এই ভিটামিনের অভাবে জিহ্বার লাল দাগের মতো গোটা গোটা তৈরি হয় এছাড়াও এটি কাওয়াশাকি রোগের কারণেও হতে পারে। 

তবে এটি যদি ভিটামিনের অভাবে হয়ে থাকে তাহলে রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে প্রকাশ পায়। এই জিহ্বার গোড়ায় লাল গোটা প্রতিরোধে অ্যান্টিবায়োটিকের প্রয়োজন পড়ে। এই সমস্যাটি শুধু বড় দেরী নয় এটি ছোট বাচ্চাদের হয়ে থাকে তাই এই সমস্যাটিকে অবহেলা না করে দ্রুত একজন ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত আর এটিকে যদি অবহেলা করা যায় তাহলে ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে।

জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি কেন হয়

জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি যাকে বলা হয় লাইকেন প্ল্যানাস। জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি কি কারনে হয় বলা খুবই মুশকিল হালকা জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি হলে কোন চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না কিছুদিন পর এমনি ঠিক হয়ে যায়। আর যদি জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি ব্যথা সৃষ্টি হয় তাহলে এটি সাময়িক ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা করা হয়।


তবে এই জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে যার ফলে মুখে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়তে পারে এছাড়াও এই লাইকেন প্ল্যানাস অর্থাৎ ফুসকুড়ি নখ, মাথার ত্বকে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে তাই যাদের জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি দেখা দিয়েছে অবহেলা না করে একজন ডাক্তারের শরণাপন্ন হন।

জিহ্বার ঘা এর ছবি

জিহ্বার নিচে ফুলে যাওয়ার কারণ

জিহ্বার নিচে ফুলে যাওয়া বিভিন্ন কারণে হতে পারে। জিহ্বার নিচে ফুলে গেলে আমাদের খাবার খেতে অনেক অসুবিধা হয় এবং ব্যথা সৃষ্টি করে। তবে এই জিহ্বার ভুলে যাওয়া কোন গুরুতর রোগ নয় তবে এটি যদি ৮ থেকে ১০ দিনের বেশি স্থায়ী হয় তাহলে সমস্যা। জিহ্বার নিচে ভুলে গেলে এর পাশাপাশি গলা শক্ত হয়ে যাওয়া ও গলা ব্যথা করা ইত্যাদি সমস্যা সৃষ্টি হয় এছাড়াও কিছু কারণ রয়েছে যেগুলি নিচে উল্লেখ করা হলো।
  • ধূমপান কারণে
  • ভিটামিনের অভাবে
  • মানসিক চাপ
  • অ্যালকোহল ব্যবহার করার কারণে
  • আলগা দাঁত বা নকল দাঁত লাগানো
  • এইডস এবং শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম হওয়ার কারণে

শেষ কথা

আশা করি এই আর্টিকেলটি পড়ে এতক্ষণে বুঝে গেছেন জিহ্বার বিভিন্ন সমস্যা কি কারনে হয়ে থাকে।আপনি যদি ধূমপান না করা, ভিটামিনের অভাব পূরণ করতে সবুজ শাকসবজি খাওয়া, অ্যালকোহল এড়িয়ে চলা এবং জিহ্বা পরিষ্কার করা ইত্যাদি এগুলি যদি আপনি মেনে চলেন তাহলে জিহ্বার সমস্যা গুলি থেকে আপনি রেহাই পেতে পারেন। 

আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের সাথে জিহ্বার গোড়ায় গোটা কেন হয় ও করণীয় কি এবং জিহ্বার গোড়ায় ফুসকুড়ি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করি আপনি সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েছেন এই পোস্টটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে অন্যদের সাথে শেয়ার করে দিবেন। 

আপনার যদি জিহ্বার জিহ্বার গোড়া সংক্রান্ত কোনো প্রশ্ন থেকে থাকে তবে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন। এই সকল বিভিন্ন রকম তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটিতে প্রতিনিয়ত চোখ রাখতে পারেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url