আলকুশি পাউডার এর অপকারিতা ও ১০টি উপকারিতা সম্পর্কে

আজকের এই আর্টিকালে আপনাদের সাথে আলকুশি পাউডার এর অপকারিতা এবং আলকুশি পাউডার এর উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করব। আলকুশি একটি ঔষধি গাছ বলা হয়ে থাকে আর এই গাছের ফল থেকেই আলকুশি পাউডার তৈরি করা হয় এই আলকুশির রয়েছে অনেক গুণ। অনেকেই আছেন যারা আলকুশি পাউডার এর উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানেন না তাদের জন্য এই পোস্টটি।
যারা আলকুশি পাউডার খাওয়ার কথা ভাবছেন বা আগে থেকেই খাচ্ছেন তাদের আলকুশি পাউডার এর অপকারিতা সম্পর্কে জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই এই আর্টিকেলে আলকুশি পাউডার এর উপকারিতা ও অপকারিতা এবং আলকুশি পাউডার খাওয়ার নিয়ম সকল খুঁটিনাটি বিষয় আলোচনা করার চেষ্টা করব।
পোস্ট সূচীপত্রঃ 

ভূমিকা

আলকুশি একটি ঔষধি গাছ যার ফল খেয়ে গুঁড়ো করে আলকুশি পাউডার তৈরি করা হয় এটি প্রায় ২ বছর ধরে গুরুত্বপূর্ণ আয়ুর্বেদিক ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। এই আলকুশি রয়েছে অনেক উপকারিতা যা বলে শেষ করা যাবে না যেমন শরীরে দ্রুত ক্ষত সারাতে, ডায়াবেটিস, ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে এবং মস্তিষ্কে ডোপামিন হরমোন ক্ষরণে সহায়তা করে থাকে।
এছাড়াও ক্লান্তি দূর করতে ও শক্তি বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে এই আর্টিকেলে আলকুশি পাউডার এর উপকারিতা ও অপকারিতা, খাওয়ার নিয়ম ইত্যাদি সকল খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে জানতে হলে আমাদের সাথে থাকুন।

আলকুশি পাউডার খাওয়ার নিয়ম

অনেকে আছেন যারা আলকুশি পাউডার খেয়ে থাকেন কিন্তু কোন উপকারিতা পান না তার একটি কারণ হচ্ছে সঠিকভাবে না খাওয়া তাই এই অংশে আমরা আলকুশি পাউডার খাওয়ার সঠিক নিয়ম গুলি আপনাদের জানাবো। মহান আল্লাহ তায়ালা প্রত্যেকটা গাছেই একেক রকমের উপাদান দিয়েছে যেমন দেখেন আমাদের মানব দেহের জন্য বীর্যমূল, শতমূল, অশ্বগন্ধা, শিমুলমূল এবং এই আলকুশি বীজ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 

এই আলকুশি পাউডার খাওয়ার নিয়ম হচ্ছে আলকুশি পাউডার এবং বীজ আপনি চা বানিয়ে খেতে পারেন কোন অসুবিধা নেই এর জন্য আপনাকে গরম এক কাপ চা এ এক চামচ আলকুশি পাউডার মিশিয়ে হালকা চিনি দিয়ে খেয়ে নিতে পারেন। 

এছাড়া এক কাপ গরম পানি অথবা দুধের সাথে সাথে আলকুশি পাউডার মিশিয়ে  খেলে বেশি উপকার পাওয়া যায় এভাবে যদি আপনি টানা ১০ থেকে ১২ দিন খান তবে চমৎকার উপকার পাবেন। এছাড়াও আপনি আলকুশি বীজ রান্নার সাথে সবজির মত করে রান্না করে খেতে পারেন।

আলকুশি পাউডার এর অপকারিতা

আলকুশি পাউডার ওষুধি গুণের জন্য ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে অনেকেই আছেন যারা আলকুশি পাউডার বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের জন্য ব্যবহার করে থাকেন তবে কিছু কিছু মানুষের ক্ষেত্রেই এই আলকুশি পাউডার ব্যবহার করা উচিত হবে না যাদের অনিয়মিত হৃদস্পন্দনের চিকিৎসা চলাকালীন সময়ে, নিউরোপ্যাথি, সাইকোসিস এবং গর্ভবতী মহিলাদের আলকুশি পাউডার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

কারণ আলকুশি পাউডার এ জরায়ু প্রভাব থাকে যার ফলে জরায়ু ফেটে গিয়ে রক্তপাত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে এছাড়াও ক্রনের বিভিন্ন ক্ষতি করতে পারে ফলে জন্মগত ত্রুটির কারণ হতে পারে। তাই স্তন্যদানকারী এবং গর্ভবতী মহিলাদের আলকুশি পাউডার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। 
যারা লিভার রোগে আক্রান্ত রয়েছেন তারা এই আলকুশি খাওয়া থেকে বিরত থাকুন কারণ এর মধ্যে রয়েছে লেভডোপা সিরাম যা লিভারের রোগকে আরো বাড়াতে পারে এবং যারা অতিরিক্ত আলকুশি পাউডার খেয়ে থাকেন তাদের এল-ডোপা হতে পারে ফলে বিভ্রান্তি ও হ্যালুসিনেশন লক্ষণ দেখা দিতে পারে তাই অতিরিক্ত আলকুশি পাউডার খাবেন না। 

আলকুশি বীজ এ ফেনল ও ট্যানিন রয়েছে যার কারনে এটি পাউডার বানিয়ে খাওয়ার আগে ভালোভাবে বীজগুলো ধুয়ে নিন। আশা করি আপনি আলকুশি পাউডার এর অপকারিতা কি কি সেগুলি জানতে পেরেছেন।

আলকুশি পাউডার এর উপকারিতা

এই আলকুশি বীজ অনেকটাই সিমের বিচির মত। এটি আকারে ছোট হলেও এর উপকারিতার কোন তুলনা নেই। যদিও এটি একটি ওষুধে গাছ তবু এটিতে রয়েছে প্রোটিন, অ্যামিনো এসিড, ফ্যাটি অ্যাসিড ইত্যাদি সমৃদ্ধ উৎস। 

গবেষণা অনুসারে দেখা গেছে আলকুশি পাউডার অনেক প্রাচীনকাল থেকেই ব্যবহার হয়ে আসছে রোগের ওষুধ হিসাবে। অনেকে আছেন যারা আলকুশি পাউডার এর উপকারিতা সম্পর্কে তেমন একটা জানেন না চলুন তাহলে আলকুশি উপকারিতা কি কি সেগুলি জেনে নেওয়া যাক।
  • মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়ায়।
  • ক্যান্সার প্রতিরোধ করে।
  • ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।
  • শুক্রাণু বৃদ্ধি ও স্নায়বিক দুর্বলতা কাটিয়ে উঠতে এই আলকুশি পাউডার এর কোন তুলনা নেই।
  • আলকুশি দ্রুত ক্ষত সারাতে বেশ কার্যকারী ভূমিকা পালন করে। শরীরে কোন আঘাত বা ক্ষত থাকলে এতে আলকুশি শিকড়ের রস বা আলকুশি পাউডার দিলে দ্রুত ক্ষতস্থান সেরে যায়।
  • কোন বিষাক্ত পোকামাকর শরীরে কামড় দিলে সেই কামরের স্থানে আলকুশি পাউডার লাগালে যন্ত্রণা কমে যায়।
  • প্রতিনিয়ত আলকুশি পাউডার খেলে শরীরে শক্তি বাড়ে এবং ক্লান্তি দূর হয়।
  • আলকুশি পাউডার বা শিকড়ের রস খেলে দ্রুত সর্দি-কাশি ভালো হয়ে যায়।
  • মাসিক ঋতুস্রাবে কোন ব্যথা পেলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়ে থাকে এক্ষেত্রে আলকুশি পাউডার ক্ষতস্থানে লাগালে দ্রুত রক্তপাত বন্ধ হয়।

আলকুশি পাউডার কোথায় পাওয়া যায়

এই আলকুশি পাউডার আপনি বিভিন্ন দোকান-বাজার অথবা অনলাইন শপে কিনতে পেয়ে যাবেন তবে কিনার আগে ভালো করে মেয়াদ যাচাই-বাছাই করে নিবেন।

শোধন করা আলকুশি পাউডার

এই দুধ দিয়ে শোধন করা আলকুশি পাউডার বিশেষ করে পুরুষদের জন্য একটি শক্তিশালী উপাদান। দুধ দিয়ে শোধন করা এই আলকুশি পাউডার অনেক উপকারিতা রয়েছে যেমন বীর্য ঘন ও শুক্রাণু পরিমাণ বৃদ্ধি করে এছাড়াও যাদের স্বপ্নদোষ সমস্যা রয়েছে তারাও এই দুধ দিয়ে শোধন করা আলকুশি পাউডার খেতে পারেন ফলে স্বপ্নদোষ সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

শেষ কথা

অতিরিক্ত পরিমাণে আলকুশি পাউডার সেবন করবেন না কেননা প্রতিটা জিনিসেরই একটি নির্দিষ্ট মাত্রার রয়েছে সে অনুযায়ী সেবন করবেন। আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের সাথে আলকুশি পাউডার এর অপকারিতা এবং আলকুশি পাউডার এর উপকারিতা কি কি সেগুলো জানিয়েছি।

এছাড়াও আলকুশি পাউডার খাওয়ার নিয়ম ইত্যাদি সকল কিছু খুঁটিনাটি বিষয় তুলে ধরেছি আশা করি আপনি সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েছেন এবং উপকৃত হয়েছেন। তাই এই পোস্টটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে অন্যদের সাথে শেয়ার করে দিবেন।

এবং আপনার যদি কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তবে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন। এই সকল নতুন নতুন তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটিতে প্রতিনিয়ত চোখ রাখতে পারেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url