সেক্সে রসুনের উপকারিতা কি ও সেক্সে বৃদ্ধির ১২টি খাবার দেখুন

রসুনের অনেক গুনাগুন রয়েছে। রসুন একটা প্রাকৃতিক এন্টিবায়োটিক যখন পৃথিবীতে কোন এন্টিবায়োটিক ছিল না অনেকেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বা কোন জীবাণুর সাথে যুদ্ধ করার জন্য রসুনের দ্বারস্থ হত। আজকের এই আর্টিকেলে সেক্সে রসুনের উপকারিতা কি এবং সেক্সে বৃদ্ধির খাবার কি সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।
সেক্সে রসুনের উপকারিতা কি ও সেক্সে বৃদ্ধির ১২টি খাবার দেখুন
আপনারা যারা স্ত্রী কাছে একেবারে দুর্বল রয়েছেন বা স্ত্রী স**হবাসে দ্রুত বীর্যপাত হয়ে থাকে বা আপনাদের ইচ্ছা শক্তি থাকা সত্ত্বেও আপনার কিন্তু আপনাদের চাহিদা পূরণ করতে পারেন না তাদের জন্যই আজকে এই আর্টিকেলটি। যারা যৌন দুর্বলতায় ভুগছেন তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেলটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। চলুন তাহলে সেক্সে রসুনের উপকারিতা কি ও সেক্সে বৃদ্ধির খাবার কি সে সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক। 

সেক্সে রসুনের উপকারিতা কি

নারীদের পাশাপাশি পুরুষদেরও বেশ কিছু যৌন সমস্যা হতে পারে। পুরুষদের অনুন্নত স্পার্মের জন্য যৌন অক্ষমতা দেখা যায়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য মতে প্রতি মিলিলিটার শুক্রাণুতে ২০ মিলিয়নের কম স্পার্ম থাকলে যে কোন পুরুষ অনুর্বর হতে পারে অস্বাস্থ্যকর খাদ্য অভ্যাস, অনিয়ন্ত্রিত জীবন, ব্যায়ামে অনীহা, ধূমপান, অ্যালকোহল, প্রভৃতি কারণে দিন দিন অনুর্বরতা বাড়ছে। 


যেসব পুরুষের যৌন সমস্যা আছে তারা কোনো ভাবনা ছাড়াই রসুন খেতে পারেন এতদিন তো তরকারিতে রসুন খেয়েছেন এবার জানুন কিভাবে রসুন খেলে যৌন ক্ষমতা বাড়বে। সুস্থ বীর্য তৈরিতে রসুনের কোন তুলনা হয় না। যৌন অক্ষমতার ক্ষেত্রে রসুন খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। 

রসুনকে গরিবের পেনিসিলিন বলা হয়ে থাকে কারণ এটি অ্যান্টিসেপটি হিসাবে কাজ করে এবং এটি সহজলভ্য একটি উপাদান যা আমরা প্রতিদিন খেয়ে থাকি। আপনার যৌন ক্ষমতা ফিরিয়ে আনতে এটি খুবই কার্যকারী। কোন রোগের কারণে অথবা কোন দুর্ঘটনার কারণে আপনার যৌন ইচ্ছা যদি কমে যায় তাহলে নিঃসন্দেহে রসুন খেতে পারেন। 

রসুন পুনরায় যৌন শক্তি ফেরাতে সাহায্য করে এবং যৌন ইচ্ছা বাড়িয়ে তোলে যদি কোন ব্যক্তি যৌন ইচ্ছা খুব বেশি হয় কিংবা মাত্রাতিরিক্ত হয় যার অর্থধিক প্রয়োগ নার্ভাস সিস্টেমের ক্ষতি করে এমন ক্ষেত্রেও রসুন খুবই কার্যকরী সেজন্য যৌন ক্ষমতা বাড়াতে এবং অতিরিক্ত যৌন ইচ্ছা কমাতে রসুন খুবই উপকারী। সেক্সে রসুনের উপকারিতা কি কি  সেগুলি উল্লেখ করা হলোঃ 
  • যৌন ক্ষমতা ফিরিয়ে আনে।
  • যৌন ইচ্ছা নিয়ন্ত্রণ রাখে।
  • বীর্যের শুক্রানুর পরিমাণ বৃদ্ধি করে।
  • উচ্চ রক্তচাপ কামায়।
  • দ্রুত বীর্যপাত কমাতে সাহায্য করে।
  • টেস্টোস্টেরন মাত্রা বৃদ্ধি করে।
  • প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক হিসাবে কাজ করে।

সেক্সে বৃদ্ধির খাবার কি

অনেকেই জানতে চেয়ে থাকেন কি কি খাবার খেলে সেক্স বৃদ্ধি পায়। আমরা মানুষ হিসেবে যেহেতু সামাজিক জীব সামাজিক কথা আমাদের রক্ষা করে চলতে হয় সে সামাজিকতার অন্যতম অংশ হচ্ছে ব্যক্তিগত জীবন বা যৌন জীবন। এই ব্যক্তিগত জীবন বা যৌন জীবনকে সঠিক বা পারফেক্ট রাখার জন্য কিন্তু আপনাকে অবশ্যই যেমন নিজের প্রতি যত্নশীল হতে হবে নিজের শারীরিক স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নশীল হতে হবে।

পাশাপাশি নিজের মানসিক স্বাস্থ্যেরও যত্ন নিতে হবে কেননা এইসব বিষয়গুলো একটি আরেকটি সাথে জড়িত। এখন কথা বলব যে কোন কোন খাবার খাদ্য তালিকায় রাখলে সেটা আপনার যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে সে বিষয়টি সম্পর্কে। অনেক রোগের জটিলতার জন্য অনেকের খেতে বিভিন্ন ওষুধের সাইড ইফেক্ট বা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হিসেবে বা বিভিন্ন কারণে কিন্তু এই যৌন অক্ষমতা তৈরি হতে পারে। 

সঠিক কারণটি আইডেন্টিফাই করে নিতে হবে আর যদি খুব বেশি জটিলতা থাকে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে পাশাপাশি বেশ কিছু খাবার খাদ্য তালিকা অন্তর্ভুক্ত করতে হবে যেগুলো আপনাকে খুব ভালো কার্যকর ভূমিকা দিতে সাহায্য করবে। চলুন তাহলে সেক্সে বৃদ্ধির খাবার কি কি সেগুলো জেনে নেওয়া যাক।
  • জিংক সমৃদ্ধ খাবারঃ আমরা ফাস্ট ক্লাস প্রোটিন মাছ, মাংস, ডিম, দুধ জিংক পেয়ে যাই পাশাপাশি সেকেন্ড ক্লাস প্রোটিন যেগুলো আছে বাদাম, বিভিন্ন ধরনের বিচি জাতীয় খাবার ডাল জাতীয় খাবার এগুলো থেকেও জিংক পাওয়া যায় নিয়মিত এ জাতীয় খাবার গ্রহণ করার চেষ্টা করতে হবে।
  • কাঁচা রসুনঃ খাদ্য তালিকায় কাঁচা রসুন রাখতে হবে। কাঁচা রসুন আপনার যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে খুব ভাল কার্যকর ভূমিকা পালন করে। সকালে ঘুম থেকে উঠে ৩-৪ কোয়া কাঁচা রসুনের সাথে ১ চামচ মধু মিশিয়ে খালি পেটে সেবন করেন সেটি আপনার জন্য খুব ভালো কার্যকর সলিউশন দিতে সাহায্য করবে।
  • লাইকোপেন সমৃদ্ধ খাবারঃ যে সকল লাল ফলমূল যেমনঃ তরমুজ, টমেটো, আনার বা বেদানা এই জাতীয় খাবার এগুলো খুব ভালো কাজ করে থাকে আপনারা যারা বিভিন্ন যৌন অক্ষমতা ভুগে থাকেন তাদের ক্ষেত্রে সলিউশন ভালো দেয়ার জন্য।
  • ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবারঃ বিভিন্ন সামুদ্রিক মাছ বিভিন্ন বাদাম এবং বিভিন্ন ধরনের বিচি যেমনঃ মিষ্টি কুমড়ার বিচি হতে পারে সূর্যমুখীর বিচি হতে পারে চিয়া সিড হতে পারে ফ্ল্যাকসিড হতে পারে এইসব বিচি জাতীয় খাবারগুলো থেকেও ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড পাওয়া যায়। নিয়মিত এই জাতীয় খাবার খাদ্য তালিকা অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।
  • খেজুর এবং মধুঃ এই জাতীয় খাবার গুলো কিন্তু নিয়মিত গ্রহণ করার মাধ্যমে সেগুলো আপনার যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।
  • ডিমের কুসুমঃ সেক্স বৃদ্ধি করতে ডিমের কুসুম খেতে পারেন। এই জিনিসটা আপনার শরীরের সর্বোচ্চ টেস্টোস্টেরন হরমনের মাত্রা লেভেল অনেক বেশি বৃদ্ধি করে দেবে এবং এটি নারীদের ইস্ট্রোজেন হরমোনের মাত্রাটাও অনেক গুণ বাড়িয়ে দিবে।
  • মিল্ক সেকঃ এটা এমন একটা খাবার যেটার ভিতরে ভিটামিন ই সমৃদ্ধ থাকে যেটা যৌন শক্তিটাকে বৃদ্ধি করে। বাদাম, কাঠবাদাম, কাজুবাদাম, পেস্তা বাদাম এই তিনটা বাদামের সমন্বয়ে আপনি কলা মিশ্রিত করে বেলেন্ডারের জুস করে এ খাবারটা খেতে পারেন।
  • চকলেটঃ চকলেটের মধ্যে এমন যৌগ রয়েছে যা ডোপামিনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় এবং সেক্স বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে।
  • গাজরঃ এই গাজর শুক্রানো বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। তাই আপনি যদি প্রতিদিন একটি থেকে দুইটি গাজর খান তাহলে আপনি কিছুদিনের মধ্যেই ফলাফল পাবেন।
  • ডার্ক চকলেটঃ প্রতিদিন চেষ্টা করুন এক থেকে দুই টুকর ডার্ক চকলেট খাওয়ার কেননা এতে এল-আর্জিনিন অ্যামিনো অ্যাসিড থাকে যা শরীরের রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক মাত্রায় রাখে এবং যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।
  • পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবারঃ শরীরে যদি পটাশিয়ামের মাত্রা কমে যায় তাহলে রক্তচাপের সমস্যা দেখা যায় এবং যৌন ক্ষমতা কমে যায় তাই প্রতিদিনের খাবার তালিকায় পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার রাখুন যেমনঃ- নারকেলের পানি, কলা, শুকনো খুবানি ইত্যাদি।
  • চেরিঃ আপনার প্রতিদিনের খাবার তালিকায় চেরি ফল রাখুন কারণ চেরি ফলে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্থোসায়ানিন যার কারণে শরীরে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকে কাজেই প্রতিদিন চেরি ফল খেলে পুরুষদের যৌন শক্তি উন্নতি হয়।

সেক্সে বৃদ্ধির উপায় কি

দেখা যায় আমাদের জীবনের বিভিন্ন পর্যায় আসে শিশু কাল তার পরবর্তীতে বয়সন্ধিকাল তার পরবর্তীতে যৌবনকাল এবং তার পরবর্তীতে বৃদ্ধ বয়সে আমাদের জীবনের প্রতিটি স্টেজের জন্য কিন্তু খাবারের ভূমিকা অত্যাবশ্যকীয় কেননা একজন বাচ্চা যখন মায়ের পেটে গর্ভাবস্থায় থাকে তখন থেকে তার দেহের চাহিদা পূরণ করার জন্য প্রয়োজন সঠিক পুষ্টি এবং পুষ্টিকর খাবার।


পুষ্টিকর খাবারের কিন্তু বিকল্প কোন কিছুই না। একজন ছেলে হোক কিংবা মেয়ে হোক তার জীবনের জন্য অত্যাবশ্যকীয় হচ্ছে সঠিক খাবার। আপনি যদি কোন ওষুধ ছাড়াই যৌন শক্তি বৃদ্ধি করতে চান তাহলে দুধ খান কারণ যৌন উত্তেজনা বাড়াতে এবং যৌন দুর্বলতা দূর করতে দুধের কোন বিকল্প নেই।
এর পাশাপাশি চেষ্টা করুন প্রতিদিন সকালে একটি করে সিদ্ধ ডিম খাওয়ার। যদি প্রতিদিন সম্ভব না হয় তাও অন্তত সপ্তাহে ৪ থেকে ৫ দিন ডিম সিদ্ধ করে খান এতে আপনার যৌন দুর্বলতা সমাধান হয়ে যাবে।

মধুর উপকার সম্পর্কে আমরা কমবেশি সবাই জানি সুতরাং আপনি যদি যৌন শক্তি বাড়াতে চান তাহলে এক গ্লাস গরম পানিতে এক চামচ খাঁটি মধু মিশিয়ে সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন সেবন করুন। এছাড়া আপনি কাঁচা রসুন খালি পেটে চিবিয়ে খেতে পারেন কারণ রসুনের মধ্যে এলিসিন নামের একটি উপাদান রয়েছে যা যৌন শক্তিকে বাড়িয়ে দেয় এবং শরীরের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে।

কাঁচা রসুন খাওয়ার নিয়ম

অনেক নারী পুরুষই যৌন শক্তিটাকে বৃদ্ধি করতে কাঁচা রসুন খেয়ে থাকেন কিন্তু অনেকেই কাঁচা রসুন খাওয়ার নিয়মটা গড়মিল পাকিয়ে ফেলেন তাই এই অংশে আপনাদের জানাবো যৌন শক্তি বাড়াতে কাঁচা রসুন খাওয়ার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে। আমি আপনাকে কাঁচা রসুন খেতে একদমই নিষেধ করব। রসুনটা খেতে হলে আপনাকে অবশ্যই ঘি দিয়ে ভেজে অথবা শুকিয়ে খেতে হবে।

অথবা রসুন আপনি টক দই বা আমলকি রসের সাথে এটা মিশিয়ে খেতে পারেন তাহলে দেখবেন যে আপনার রসুনের উপকারিতা একটু ভালো কাজ করবে আর যেটা হবে যে কাঁচা রসুন খেলে আপনার মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে যেটা পাশের মানুষের জন্য একটু কষ্টকর হতে পারে।

রাতে রসুন খাওয়ার উপকারিতা

রাতে রসুন খাওয়ার উপকারিতা জানলে আপনি হয়তো প্রতিদিন রাতে রসুন খেতে শুরু করবেন চলুন তাহলে রাতে রসুন খেলে কি কি উপকারিতা পাওয়া যায় সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

১. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়েঃ আপনি যদি সপ্তাহে ২ দিন রাতে রসুন খেতে পারেন তাহলে শরীরের জমে থাকা সকল প্রকার টক্সিন দূর করে আপনাকে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দিবে ফলে আপনার শরীরে সহজে কোন জটিল রোগ আক্রমণ করতে পারবে না।

২. স্মৃতিশক্তি বাড়েঃ স্মৃতিশক্তি বাড়াতে রসুনের জুড়ি নেই রাতের বেলা রসুন খেলে রসুনের পুষ্টিগুণ মস্তিষ্কের নার্ভগুলোকে স্ট্রং করা ফলে আপনার মনে রাখার ক্ষমতা বাড়ার পাশাপাশি আপনার উপস্থিত বুদ্ধি ক্ষমতা অনেকখানি বৃদ্ধি পাবে।

৩. টেস্টোস্টেরন হরমন বাড়েঃ টেস্টোস্টেরন হরমন বাড়াতে অসাধারণ গুণ রয়েছে। টেস্টোস্টেরন মূলত পুরুষ হরমন এটি আপনাকে উদ্ধমী এনার্জিটিক পুরুষত্ব বাড়াতে বেশ কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে তবে এটি ছেলে মেয়ে উভয় সমানভাবে কাজ করে শরীরে হরমোনাল ভাষণ রক্ষার জন্য। হরমোনাল সমস্যা থাকলে আপনার খাদ্য তালিকায় নিয়মিত যোগ করুন।


৪. দ্রুত ঘা শুকায়ঃ দ্রুত ক্ষত শুকাতে রসুনের ঝুড়ি নেই। যুদ্ধকালীন সময়ে আহত সৈনিকদের ক্ষতস্থানে রসুনের ব্যবহার করা হয়েছিল কারণ রসুন রয়েছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিবায়োটিক গুন এর সাথে রাতের বেলা রসুন খেলে রসুমে থাকা ভিটামিন সি ও সালফার দ্রুত ঘা শুকাতে সাহায্য করে।

ভরা পেটে রসুন খেলে কি হয়

আমরা সবাই জানি যে রসুন একটি প্রাকৃতিক এন্টিবায়োটিক ওষুধ এটি শরীরের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে। রসুনের এইসব গুণ ভালো কাজে দেয় যদি আপনি খালি পেটে নিয়ম মেনে রসুন খান তাহলে আর যদি আপনি ভরা পেটে রসুন খান তাহলেও উপকার পাবেন তবে খালি পেটের খাওয়ার মতন উপকার পাবেন না।

শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলে সেক্সে রসুনের উপকারিতা কি এবং সেক্সে বৃদ্ধির খাবার কি কি সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়েছি আশা করি আপনি এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়েছেন। আপনার যদি দীর্ঘদিন যাবত যৌন দুর্বলতায় ভোগে থাকেন তাহলে আপনার খাবার তালিকায় নিয়মিত রসুন রাখুন। আপনার যদি বুঝতে কোন অসুবিধা হয়ে থাকে অথবা কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে নিচে কমেন্ট করে আমাদেরকে জানাতে পারেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url