জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে তা জেনে নিন

প্রিয় বন্ধুগণ এই আর্টিকেলে আপনাদের সাথে জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে এবং জিরা পানি খাওয়ার অপকারিতা ও উপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করব। এই জিরা পানি স্বাস্থ্যকর একটি ড্রিংক যা ওজন কমাতে সাহায্য করে তবে জিরা পানি খাওয়ার সঠিক নিয়ম না জানলে এর কোন উপকার পাবেন না তাই এই আর্টিকেলে জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে বিস্তারিত আলোচনা করব।
জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে - জিরা পানি খাওয়ার অপকারিতা কি কি তা জেনে নিন
এই জিরা পানির অনেক উপকারিতা রয়েছে। আপনি যদি ওজন কমানোর জন্য বা অন্যান্য উপকারের জন্য জিরা পানি খাওয়ার চিন্তা ভাবনা করে থাকেন বা আগে থেকেই খাচ্ছেন কিন্তু কোন উপকার পাচ্ছেন না 

তাহলে আজকের এই আর্টিকেল পোস্টটি আপনার জন্য কারণ জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে এবং জিরা পানি খাওয়ার অপকারিতা সম্পর্কে জানা আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাই এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন। 

জিরা পানি তৈরির নিয়ম

জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে সেটা জানার আগে আপনাকে প্রথমে জিরা পানি তৈরির নিয়ম
জানতে হবে। এখন বাজারে জিরা পানি বোতলে করে কিনতে পাওয়া যায় তবে আপনারা চাইলে নিজের বাড়িতেই কোন কেমিক্যাল ছাড়াই জিরা পানি তৈরি করতে পারবেন খুব সহজেই। চলুন তাহলে জিরা পানি কিভাবে তৈরি করবেন সেটা জেনে নেওয়া যাক। 


প্রথমে দুই চামচ জিরা ভেজে ফেলতে হবে তারপর গরম ভেজা জিরা গুলোকে ব্লেন্ডারে গুঁড়ো করে ফেলতে হবে তারপর একটা কাঁচামরিচ কুচি কুচি করে কেটে নিয়ে অল্প পরিমাণে পুদিনা পাতা এবং অল্প একটু পানি দিয়ে একসঙ্গে ছেচে করতে হবে 

তারপর একটি জগে ২ লিটার পানির ভিতর ছেচে করা মরিচ এবং পুদিনা পাতা মিক্সটা দিয়ে দিতে হবে এবং গুঁড়ো করা জিরা দুই চামচ দিয়ে দিতে হবে তারপর ভালোভাবে মিক্স করতে হবে তাহলে আপনার জিরা পানি তৈরি করা সম্পূর্ণ।

কি হয়েছেজিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে

জিরা পানি এটা অনেক হেলদি একটা ড্রিংক যা ওজন কমানোর সাথে সাথে হজম শক্তি বৃদ্ধি করে ঘুম ও ব্রণের সমস্যার সমাধান করে। আপনি যদি সঠিক নিয়মে ১৫ থেকে ২০ দিন প্রতিনিয়ত জিরা পানি খান এবং খাদ্যভ্যাসের পরিবর্তন করেন তাহলে ওজন কমানো সম্ভব এর পাশাপাশি আপনার হজম শক্তি বৃদ্ধি এবং ঘুম ভালো হবে। জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে 

১. ওজন কমাতে জিরা পানি খাওয়ার নিয়মঃ ঘুমাতে যাওয়ার আগে ১ গ্লাস পানির ভিতর ২ চামচ কাঁচা জিরা দিয়ে দিন এবং ভালোভাবে মিক্স করে রেখে দিন তারপর সকালে খালি পেটে জিরা পানিটিকে ছেঁকে নিয়ে তার ভিতরে অল্প পরিমাণে লেবুর রস দিয়ে খেয়ে নিন। এভাবে যদি আপনি মিনিমাম ১০ থেকে ১৫ দিন খান ফলে আপনার ওজন কমে যাবে।

২. হজম শক্তি বাড়াতে জিরা পানি খাওয়ার নিয়মঃ জিরা পেটের গ্যাস কমায় এবং হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে তাই আপনি যদি হজম শক্তি বাড়াতে চান তাহলে একটি পাত্রে এক গ্লাস পানি এবং ১-২ চামচ জিরা একসঙ্গে মিক্স করে জাল দিতে হবে। তারপর লক্ষ্য করবেন বাদামি রঙের হয়ে গেলে নামিয়ে ফেলতে হবে তারপর ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার পর এটি খেতে পারেন দিনে ৩ থেকে ৪ বার।

৩. পেট পরিষ্কারের জন্য জিরা পানি খাওয়ার নিয়মঃ অল্প পরিমাণে কাচাজিরা ভেজে নিয়ে গুঁড়ো করে নিতে হবে তারপর এটিকে ১ গ্লাস পানি এবং জিরার গুঁড়ো ও ১ চামচ মধু একসঙ্গে মিক্স করে প্রতিদিন খালি পেটে সকালে খেতে পারেন ফলে আপনার পেট পরিষ্কার থাকবে এবং হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে।

৪. রাতে ঘুম না হওয়া দূর করতে জিরা পানি খাওয়ার নিয়মঃ অনেকেরই আছে রাতে ঠিক মতন ঘুম হয় না তাদের জন্য জিরা পানি খুবই উপকারী। প্রতিদিন যদি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই জিরা পানি খাওয়া হয় তাহলে রাতে ঘুম না হওয়ার সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

জিরা পানি খাওয়ার অপকারিতা

প্রতিটা জিনিসেরই যেমন উপকারিতা রয়েছে তেমনি অপকারিতাও রয়েছে তাই এক গবেষণায় দেখা গেছে যারা অতিরিক্ত জিরা পানি খায় তাদের শরীরের রক্ত তরল হয়ে যায় এবং এই অতিরিক্ত জিরা পানি খেলে ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষতিকর হতে পারে চলুন তাহলে জিরা পানি খাওয়ার অপকারিতা গুলো কি কি সেগুলি জেনে নেওয়া যাক। 


গবেষণায় জানা গেছে অতিরিক্ত জিরা খাওয়ার ফলে পুরুষদের প্রজনন ক্ষমতা কমে দেয়। এই জিরা গর্ভপাতের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে সুতরাং গর্ভবতী মহিলাদের জিরা পানি খাওয়া থেকে দূরে থাকুন। এটা সত্য যে জিরা পানি গ্যাস দূর করতে সাহায্য করে তবে অতিরিক্ত জিরা পানি খাওয়ার ফলে হার্ট ব্যান্ড বুক, জ্বালাপোড়া ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে।

এছাড়াও অতিরিক্ত জিরা পানি খেলে বমি বমি ভাব, মানসিক নিস্তেজ ভাব আসতে পারে তাই পরিমাণ অনুযায়ী জিরা পানি খাওয়া উচিত। যাদের ডায়াবেটিস ও ব্লাড সুগারের সমস্যা রয়েছে তারা সতর্কতার সাথে জিরা পানি খাবেন অতিরিক্ত খাবেন না। 

খালি পেটে জিরা পানি খাওয়ার উপকারিতা

সাধারণত জিরা আমরা রান্নার কাজে অন্যতম মসলা হিসেবে ব্যবহার করে থাকি যা খাবারের স্বাদ ও গন্ধ বাড়ানোর জন্য উপকারী এছাড়াও এই জিরার অনেক উপকারিতা রয়েছে। 

আপনি যদি প্রতিনিয়ত খালি পেটে জিরা পানি খান তাহলে হজম শক্তি বাড়ায়, ওজন কমায়, ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়, এসিডিটি ও বোধহজমের সমস্যা দূর করে এছাড়াও আরো অনেক উপকারিতা রয়েছে চলুন তাহলে খালি পেটে জিরা পানি খাওয়ার উপকারিতা জেনে নেওয়া যাক।


খালি পেটে জিরা পানি খাওয়ার ১৫টি উপকারিতা হলঃ
  • হজম শক্তি বাড়ায়
  • কমাতে সাহায্য করে
  • উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে
  • কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে
  • এসিডিটি কমায়
  • রক্তশূন্যতায় সহায়তা করে
  • ত্বক ও চুলের জন্য উপকারী
  • হার্টের জন্য ভালো
  • ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়
  • শরীরে দূষিত পদার্থ দূর করে
  • ঘুমের জন্য ভালো
  • ব্রণের সমস্যা দূর করে
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
  • বদহজম সমস্যা দূর করে
  • প্রদহ জনিত সমস্যা দূর করে

জিরা পানি কখন খেতে হবে

আপনি যদি আপনার ওজন কমাতে ও হজম শক্তি বাড়াতে চান তাহলে প্রতিদিন সকাল বেলা খালি পেটে জিরা পানি খেতে পারেন এতে আপনার হজম শক্তি বাড়বে ও ওজন নিয়ন্ত্রণ থাকবে এর পাশাপাশি আপনার শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে এবং এসিডিটি ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে খুবই উপকারী তাই প্রতিদিন সকালবেলা খালি পেটে জিরা পানি খাওয়ার অভ্যাস করুন।

শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের সাথে জিরা পানি কিভাবে খেলে ওজন কমে এবং জিরা পানি খাওয়ার অপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করেছি এছাড়াও খালি পেটে জিরা পানি খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে আপনাদের জানিয়েছি আশা করি আপনি সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েছেন এবং জানতে পেরেছেন।

আর এই জিরা পানি খাওয়ার ক্ষেত্রে সতর্কতা হচ্ছে অতিরিক্ত বেশি দিন ধরে এই জিরা পানি খাবেন না যদি খান তবে আপনার শরীরের বিভিন্ন রকম সমস্যা হতে পারে তাই অতিরিক্ত জিরা পানি খাওয়া থেকে এড়িয়ে চলুন। এই পোস্টটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে অন্যদের সাথে শেয়ার করে দিবেন আর এই সকল নানা তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটিতে প্রতিনিয়ত চোখ রাখতে পারেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url