ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায়, বেতন ও ভিসার দাম

প্রিয় বন্ধুগণ আজকের এই আর্টিকেলে ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায় এবং ক্রোয়েশিয়া বেতন কত সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। বর্তমান সময়ে প্রতিটা দেশে নাগরিকত্ব পাওয়াটা অনেকটাই কঠিন তাই এই আর্টিকেলে ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায় আপনাদের সাথে শেয়ার করব যে গুলির মাধ্যমে আপনি পেতে পারেন ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব।
ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায় - ক্রোয়েশিয়া বেতন কত
ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব একবার পেয়ে গেলে সেখানকার অনেকগুলি সুবিধা ভোগ করতে পারবেন যেমন সেনজেনভুক্ত দেশগুলোতে কোন ভিসা ছাড়াই যেতে পারবেন এছাড়াও আরো অনেক সুবিধা রয়েছে যারা ইতিমধ্যে ক্রোয়েশিয়া আছেন 

বা যাওয়ার কথা ভাবছেন তাদের ক্রোয়েশিয়া বেতন কত এবং ক্রোয়েশিয়া ভিসা দাম কত সেই সম্পর্কে জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এর পাশাপাশি আপনারা কিভাবে ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পেতে পারেন সেটাও আপনাদেরকে জানাবো তাই জানতে হলে এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন। 

ক্রোয়েশিয়ার মুদ্রার নাম কি

প্রথমে আপনাদেরকে ক্রোয়েশিয়া মুদ্রা সম্পর্কে কিছু তথ্য প্রদান করি। ক্রোয়েশিয়া হচ্ছে ইউরোপের একটি রাষ্ট্র এর সরকারি নাম হচ্ছে প্রজাতন্ত্র ক্রোয়েশিয়া। এই দেশটির আয়তন প্রায় ৫৬,৫৯৪ বর্গ কিলোমিটার। এই ক্রোয়েশিয়ার মুদ্রার নাম হচ্ছে ইউরো (HRK)। 
২০২৩ সালে ১ই জানুয়ারি নিজেদের মুদ্রার বদলে ইউরো ব্যবহার করা শুরু করেছে ক্রোয়েশিয়া। এই ২০২৩ সালে নতুন বছরে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে ইউরোপ ব্যবহারকারী ২০তম দেশে পা দিয়েছে ক্রোয়েশিয়া।

ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায়

ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার প্রথম উপায়টি হচ্ছে পার্মানেন্ট রেসিডেন্ট। ক্রোয়েশিয়ায় যাদের পার্মানেন্ট রেসিডেন্ট আছে তারা নাগরিকত্ব জন্য আবেদন করতে পারবেন। এখন কথা হচ্ছে কয় বছরের জন্য নাগরিকত্ব আবেদন করতে পারব। গভারমেন্ট জানিয়েছে যারা পার্মানেন্ট রেসিডেন্ট নিয়ে ক্রোয়েশিয়া তিন বছর থাকবে তাদেরকে ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব আবেদনের সুযোগ দেয়া হবে।

আপনি যদি ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব জন্য আবেদন করেন তাহলে আপনাকে একটি পরীক্ষা দিতে হবে ক্রোয়েশিয়া দেশ সম্পর্কে। আপনি যদি চান তাহলে ক্রোয়েশিয়া ৩ বছর থাকার পর পার্মানেন্ট রেসিডেন্ট নিয়ে টোটাল ৮ বছর পর নাগরিকত্ব জন্য আবেদন করতে পারেন।

নাগরিকত্ব আবেদন করার সময় আপনার বয়স কমপক্ষে ১৮ বছরের উপরে হতে হবে। এবং ক্রোয়েশিয়ার ভাষা আপনাকে জানতে হবে এবং আপনাকে প্রমাণস্বরূপ দেখাতে হবে যে আপনি ক্রোয়েশিয়ার সংস্কৃতি গ্রহণ করেছেন এবং দেশের আইন-কানুন সাথে একমত। এবং আপনি যদি অর্থনীতি, খেলাধুলা, বিজ্ঞান, শিল্প ইত্যাদি কাজের ভালো অভিজ্ঞতা থাকে।

তাহলে আপনি দ্রুত নাগরিকত্ব পেতে পারেন ১ বছরের জন্য। ক্রোয়েশিয়ার কোন নাগরিককে যদি আপনি বিবাহ করেন তাহলে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ রয়েছে। এবং একজন নাবালক যদি ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পেয়ে থাকে তাহলে তার পিতা-মাতা নাগরিকত্ব পাবে।তবে যদি আইনি অনুসারে পিতা-মাতা হয় তাহলে।

ক্রোয়েশিয়া বেতন কত

ক্রোয়েশিয়া যেহেতু এখন সেনজেন দেশ হয়ে গেছে এখানে এখন অনেক নিয়ম কানুন হয়ে গেছে তাই ওই নিয়ম কানুন মেনে চলতে হবে এবং তাদের নিজস্ব মুদ্রা বাদ দিয়ে ২০২৩ সালের ১ই জানুয়ারি থেকে ইউরো ব্যবহার করা শুরু করেছে এবং ক্রোয়েশিয়া কাজের শ্রমিকের সংকট দেখা দিয়েছে তাই যারা ক্রোয়েশিয়া যাওয়ার কথা ভাবছেন তাদের জন্য এটি বড় সুযোগ।

এখন ক্রোয়েশিয়াতে ২ ধরনের লোক কাজের জন্য যেতে পারে প্রথমটা হচ্ছে অভিজ্ঞতা প্রাপ্ত এবং আরেকটি হচ্ছে বেকার। যারা অভিজ্ঞতা প্রাপ্ত আছেন তারা কাজের জন্য সহজেই আবেদন করতে পারবেন কিন্তু যারা বেকার তাদের কিছু কাজের ওপর ভালো ডিমান্ড রয়েছে যেমন ইলেকট্রিশিয়ান, কার্পেন্টার, ফ্যাক্টরির কাজ।
এখন আপনাদের মাঝে প্রশ্ন জাগতে পারে ক্রোয়েশিয়া বেতন কত চলুন সে সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক। ক্রোয়েশিয়ায় সর্বনিম্ন বেতন হচ্ছে ৭০০ ইউরো মত যা বাংলাদেশী টাকায় ৮১ হাজার টাকা প্রতি মাসে।তবে আপনারা পুরোপুরি ৭০০ ইউরো পাবেন না এর ভেতর থেকে সরকারি ট্যাক্স কেটে নিবে। ক্রোয়েশিয়ায় আগে মাসিক বেতন ছিল ৫৬৩ ইউরো মত আগের তুলনায় এখন অনেকটাই বেতন বেড়েছে।

ক্রোয়েশিয়া ভিসা দাম কত

অনেকেই জানতে চেয়ে থাকেন ক্রোয়েশিয়ার ভিসার দাম কত? এটা বলা মুশকিল কারণ ভিসার দাম নির্ভর করে ভিসার ক্যাটাগরের উপর আপনি কোন ধরনের ভিসা নিচ্ছেন সেটার উপর। তবে আপনি যদি ভিজিট ভিসায় ক্রোয়েশিয়ায় যান তবে আপনার খরচ পড়বে ৩৬ হাজার টাকা মতো। আর আপনি যদি স্টুডেন্ট ভিসা ক্রোয়েশিয়ায় যান তাহলে মোট খরচ পড়বে ৩ লক্ষ থেকে ৪ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

আর আপনি যদি কাজের ভিসা নিয়ে ক্রোয়েশিয়ায় যান তাহলে সব মিলিয়ে আপনার খরচ হবে ৭ থেকে ৮ লক্ষ টাকা। আমরা আপনাদেরকে যেগুলি এখন ক্রোয়েশিয়া ভিসা দাম বললাম এর থেকে বেশি হতে পারে অথবা কমও হতে পারে কারণ ডলারের মান ওঠানামা করে আশা করি আপনারা ক্রোয়েশিয়া ভিসা দাম সম্পর্কে ধারণা পেয়েছেন।

ক্রোয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে ও কি কি কাগজপত্র লাগে

ক্রোয়েশিয়া এখন একটি সেনজেনভুক্ত দেশ হয়ে গেছে এবং মুদ্রার বদলে ইউরো চলছে তাই অনেক বাঙালি ক্রোয়েশিয়া যাওয়ার ইচ্ছা পোষণ করছেন আবার অনেকেই জানতে চেয়ে থাকেন ক্রোয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে এবং কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন হয়। বর্তমান সময়ে ডলারের রেট অনুযায়ী ক্রোয়েশিয়া যেতে ৭ থেকে ৮ লাখ টাকা মতো খরচ হয় সব মিলিয়ে এর বাইরেও কিছু খরচ রয়েছে। 

সাড়ে সাত সাত আট এরকম তো এর বাইরেও কিন্তু কিছু খরচ আছে ক্রোয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আপনার ওয়ার্ক পারমিট ভিসা যখন বাংলাদেশে চলে আসে তখন কিন্তু ইন্ডিয়ার দূতাবাসে গিয়ে ভিসা ইস্যু করে আসতে হয় ওইখানে গিয়ে আবার ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা মতন এক্সট্রা খরচ হয়। 

ক্রোয়েশিয়া যেতে কিছু কাগজপত্র প্রয়োজন হয় তা হল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট, পাসপোর্ট এর কপি এবং যদি সিভি চাই তাহলে আপনাকে সিভি প্রদান করতে হবে এছাড়াও আরো কিছু কাগজপত্র প্রয়োজন হতে পারে সেগুলো তারা আপনাকে জানিয়ে দিবে।

ক্রোয়েশিয়া ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা

বর্তমানে রেট অনুযায়ী ক্রোয়েশিয়ার ১ টাকা বাংলাদেশের 15.928327 টাকা। ক্রোয়েশিয়ার প্রবাসী ভাইরা ৭০০ ইউরো প্রতি মাসে ইনকাম করলে বাংলাদেশী টাকায় ৮১ হাজার ৬০০ টাকা এবং ক্রোয়েশিয়ার ১০০০ টাকা বাংলাদেশের ১,১৬,৫৯৯ টাকা।

ক্রোয়েশিয়ার বর্তমান অবস্থা

২০২৩ সালে প্রথমের দিকেই সেনজেনভুক্ত দেশের তালিকায় ২০ তম স্থানে রয়েছে ক্রোয়েশিয়া তাই এখন পর্যন্ত তেমন একটা নিয়ম-কানুন জটিল করা হয়নি ভিসার ক্ষেত্রে তাই বাংলাদেশে যারা সেনজেনভুক্ত ইউরোপের কোন একটা দেশে যেতে চান তাদের জন্য বেস্ট হবে ক্রোয়েশিয়া। 
কারণ ক্রোয়েশিয়া একটি সেনজেন ভুক্ত দেশ তাই এই দেশে গেলে বাকি ২৬ টি ইউরোপের দেশ খুব সহজেই যেতে পারবেন তাই যারা ইউরোপের যে কোন একটি দেশে যেতে চাচ্ছেন তাদেরকে বলবো ক্রোয়েশিয়া রওনা দিন।

লেখকের শেষ কথা

আপনারা যারা ইতিমধ্যে ক্রোয়েশিয়া যাওয়ার কথা ভাবছেন তাদেরকে আমি বলব এটি একটি সুবর্ণ সুযোগ আপনাদের জন্য কারণ ক্রোয়েশিয়া ইতিমধ্যে সেনজেনভুক্ত দেশের তালিকায় রয়েছে তাই দ্রুত ভিসা লাগান এবং পাড়ি দিন আপনার ইউরোপের যেকোনো দেশগুলোতে কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই।

আজকের এই আর্টিকালে আপনাদের সাথে ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায় ও ক্রোয়েশিয়া বেতন কত, ভিসা দাম কত আরো অনেক বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি আশা করি আপনি সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েছেন এবং উপকৃত হয়েছেন।

আপনার যদি ক্রোয়েশিয়া নাগরিকত্ব এবং ক্রোয়েশিয়া বেতন সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তবে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন। এই পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে অন্যদের সাথে শেয়ার করে দিবেন এবং নতুন নতুন ভিসা সংক্রান্ত তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটিতে প্রতিনিয়ত চোখ রাখবেন। 


এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Edu 360 BD নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url